আওয়ামী লীগে যোগ দিলেন কাউন্সিলর সিকন্দর আলী

প্রকাশিত : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮     আপডেট : ১ বছর আগে  
  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: দীর্ঘ একযুগ ধরে শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ড দেখে আওয়ামীলীগে যোগ দিয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের ১২ নং ওয়ার্ডের চার বার নির্বাচিত কাউন্সিলর মো. সিকন্দর আলী। মঙ্গলবার রাতে এক অনাড়ম্বর পরিবেশের মধ্যে দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের হাতে ফুল দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগে যোগ যোগদান করেন। আওয়ামী লীগে তার যোগদানে মূখ্য ভূমিকা পালন করেন কানাডা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন।
এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট-১ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ড. এম. কে মোমেন, কানাডা আওয়ামীলীগ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সরওয়ার হোসেন, যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. আহমদ আল কবির, সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম ঝলক, ২৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন।
আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে সিকন্দর আলী বলেন, বতর্মান সরকারের সফলতা আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে।
গ্রামীণ অথর্নীতিতে দারিদ্র্য হ্রাসের গতিশীলতা রাখতে সরকার নানা রকম কমর্সূচি গ্রহণ করেছে। এসব কমর্সূচির মধ্যে অতি দারিদ্র্য ও দুস্থদের জন্য বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণ, কাজের বিনিময়ে খাদ্য, টেস্ট রিলিফ ছাড়াও রয়েছে একটি বাড়ি-একটি খামার, আশ্রয়ণ, গৃহায়ন, আদশর্ গ্রাম, গুচ্ছগ্রাম, ঘরে ফেরা প্রভৃতি কমর্সূচি। এসব কমর্সূচির বাইরেও রয়েছে বয়স্ক ভাতা, দুস্থ মহিলা ভাতা, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তদের ভাতা প্রভৃতি। দারিদ্র্য নিরসনে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ সত্ত্বেও মানুষের একটি উল্লেযোগ্য অংশ দারিদ্র্য সীমার নিচে বসবাস করছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
কাউন্সিলর সিকন্দর আলী বলেন, আমি কোনদিনও বিএনপির রাজনীতিতে ছিলাম না। আমি আওয়ামী মতাদর্শে বিশ্বাসী ছিলাম। আমার পরিবারের অনেকে আওয়ামী রাজনীতিতে জড়িত থাকলেও আমি রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলাম না। এখন থেকে গণ মানুষের দল, আওয়ামী লীগের হয়ে আমি কাজ করবো। কারণ, আওয়ামী লীগ এদেশের মানুষের আস্তা এবং বিশ্বাসের দল।

আরও পড়ুন