অাওয়ামীলীগ নেতার নামে সড়কের সাইনবোর্ডের রং মুছে দেওয়ার ষড়যন্ত্র

প্রকাশিত : ০১ মার্চ, ২০১৮     আপডেট : ৩ বছর আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: ষাট থেকে নব্বই দশকের রাজনীতিতে ফেঞ্চুগঞ্জের অন্যতম সাংগঠনিক কৌশলী, অাদর্শের রাজনীতিতে বঙ্গবন্ধুর প্রিয়ভাজন, তৃণমূল অাওয়ামীলীগ নেতা ও ২নং মাইজগাঁও ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যানের নামে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার বৃহত্তর কচুয়াবহরস্থ মরহুম তজমুল অালী সড়কের সাইনবোর্ডকে সাদা রং দিয়ে মুছে দেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে একটি ঘৃণ্যচক্র। এলাকার কয়েকজন সাংবাদিক, প্রবীণ মুরব্বীয়ান সহ গুণ্যমান্য ব্যক্তিরা বিষয়টির তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।দৈনিক সিলেটের ডাক ( ০৬ জুন ২০১৭), দৈনিক শ্যামল সিলেট ( ০৫ জুন ২০১৭),দৈনিক সবুজ সিলেট ( ০৫ জুন ২০১৭), দৈনিক যুগভেরী ( ০৬ জুন ২০১৭), সিলেটের দৈনিক বিজয়ের কন্ঠ ( ০৬ জুন ২০১৭), এবং দৈনিক সিলেটের দিনরাত ( ০৫ জুন ২০১৭) ‘র ভাষ্যমতে ২০১৭ সালের ০৩ জুন এলাকার জনগণের দাবি পূরণে মরহুম তজমুল অালী সড়কের শুভ উদ্বোধন করেন সিলেট-৩ অাসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি।

বিভিন্ন তথ্যসূত্রে জানা যায়, ফেঞ্চুগঞ্জের পালবাড়ীস্থ চৌরাস্থার পূর্বনাম তজমুল অালী স্কয়ার থাকলেও পূর্ববর্তী সময়ে মুক্তিযুদ্ধের অপশক্তি রাতের অাঁধারে পালবাড়ীস্থ তজমুল অালী স্কয়ার সাইনবোর্ড মাটিতে নুইয়ে দেয়। সেই বিষয়টি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে এলাকাবাসীরা তুলে ধরলেও কোনো কার্যকরী উদ্দ্যোগ নেয়া হয়নি। অবশেষে তজমুল অালী সড়কের নামকরণকালে এলাকাবাসীরা পুনরায় মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপির উপস্থিতিতে পালবাড়ী চৌরাস্তার নাম তজমুল অালী স্কয়ার নামকরণের দাবি জানান, যা বিভিন্ন পত্রপত্রিকা সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিস্তৃতি লাভ করে। সড়ক উদ্বোধনকালে স্থানীয় সংসদ সদস্য সর্বজন স্বীকৃত জনপ্রিয় জননেতা তজমুল অালীকে অাওয়ামী রাজনীতির অহংকাররূপে অাখ্যায়িত করেন।

পরবর্তীতে কিছুদিন অাগে পালবাড়ীতে ফেঞ্চুগঞ্জের সাবেক ছাত্রনেতা এবং বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অবস্থানরত অাওয়ামীলীগ নেতাদের সংবর্ধনা প্রদানকালে বিষয়টি পুনরায় উত্থাপিত হয়, সেসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অাওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, অাওয়ামীলীগ নেতা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা দেওয়ান গৌছ সুলতান, যুক্তরাজ্য অাওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান হাবিব, উপজেলা অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অাব্দুল বাছিত টুটুল , এলাকার প্রবীণ অাওয়ামীলীগার এবং মুব্ববীয়ান সহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

কিন্তু বর্তমান পরস্থিতিতে সবার মনে একটিই প্রশ্ন- ফেঞ্চুগঞ্জ থেকে অাওয়ামীলীগের অস্তিত্বকে নিস্তেজ করতে চায় কারা?

এ বিষয়ে গতকাল ২৮ ফেব্রুয়ারি মরহুম তজমুল অালীর ছোট ছেলে ফয়েজুল হাসান ফারহানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন পরীক্ষার কারণে তিনি ফেঞ্চুগঞ্জের বাহিরে অবস্থান করছেন, এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। ফারহান বলেন- “অামার পিতাকে অামি দেখিনি, এলাকাবাসী দেখেছে, এলাকাবাসী সম্মান দিয়েছে, এলাকাবাসীই সর্বদা তজমুল অালীর পরিবারকে ভালোবেসেছে এবং তজমুল অালী সড়ক বাস্তবায়নে এলাকাবাসীর দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই কয়েস চাচা ( মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি) গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখেন। ”

তিনি বলেন, এলাকাবাসীর দেয়া উপহারগুলো এলাকাবাসীই সংরক্ষণ করবে বলে তার বিশ্বাস। তাছাড়া তজমুল অালীর পরিবারের সাথে কোনো রাজনৈতিক দল অথবা অন্য কারো ব্যক্তিগত কোনো শত্রুতা অাছে বলে তার জানা নেই এবং স্থানীয় এমপি মহোদয় সহ অন্যান্যদের প্রতি তার এবং তার পরিবারের পূর্ণ অাস্থা অাছে বলে তিনি প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে মেয়র আরিফের পুস্পস্তবক অর্পণ

         মুজিববর্ষের ক্ষনগননা শেষে সূর্যোদয়ের সাথে...

সিলেট কারাগারের সর্বপ্রধান কারারক্ষী মো. মোজাহের আলী সংবর্ধিত

         সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের সর্বপ্রধান কারারক্ষী...

হযরত শাহজালাল রহ. লতিফিয়া হাফিজিয়া মাদরাসার বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল

         উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন আল্লামা মুফতি...