অপমান সইতে না পেরে শিক্ষিকার ‘আত্মহত্যা’

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ১০ জুলাই, ২০২০     আপডেট : ৫ মাস আগে
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশ্বনাথ প্রতিনিধি হিসাবের জন্য স্কুলের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও কমিটির সদস্যদের চাপ প্রয়োগ ও নানা কটূক্তির অপমান সহ্য করতে না পেরে আসমা শিকদার সিমলা (৪০) নামে এক শিক্ষিকা আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনি সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের বাহাড় দুভাগ গ্রামের ফজলুর রহমানের স্ত্রী ও আটপাড়া গ্রামের ফিরোজ মিয়া শিকদারের মেয়ে এবং ‘আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের’ সহকারী শিক্ষিকা ও অফিস সহকারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। বুধবার ভোরে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এর আগে সোমবার তিনি আত্মহত্যার উদ্দেশ্য হারপিক পান করেন। ময়নাতদন্ত শেষে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের আটপাড়া গ্রামে পৈত্রিক কবর স্থানে তার (সিমলা) দাফন সম্পন্ন করা হয়। অন্যদিকে এ ঘটনায় বুধবার বিকেলে দৌলতপুর গ্রামের বাসিন্দা ও প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির সদস্য আনোয়ার হোসেনকে (৪২) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে থানা পুলিশ।
স্কুলে দীর্ঘ ১৯ বছর ধরে দৌলতপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অফিস সহকারীর পাশাপাশি সহকারী শিক্ষিকার দায়িত্ব পালনকারী আসমা শিকদার সিমলার মৃত্যু নিয়ে তার পরিবার ও প্রতিষ্ঠানের গভর্নিং বডির পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। জানা গেছে, বিধিমতে অফিস সহকারীর কাছে প্রতিষ্ঠানের হিসাব চাওয়া যুক্তিসঙ্গত না হলেও বারবার আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান অধ্যক্ষ ও গভর্নিং বডির কয়েকজন সদস্য প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয়ের হিসাব চেয়ে সিমলাকে চাপ প্রয়োগ করছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ নিয়ে তারা কটইক্তও করেন। চাপ ও অপমান সহ্য করতে না পেরেই প্রতিষ্ঠানের অফিস সহকারী ও সহকারী শিক্ষিকা আসমা শিকদার সিমলা আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন তার (সিমলা) পরিবারের সদস্যরা।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রতিষ্ঠানটির গভর্নিং বডি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এ দ্বন্দ্বের জের ধরে সম্প্রতি সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আবদুস শহীদকে বাদ দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রউফকে সভাপতি করে ৬ জুন ১০ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়। আর নতুন কমিটি পুরনো কমিটির কাছ থেকে প্রতিষ্ঠানের আয়-ব্যয়ের হিসাব না পাওয়ায় নানা আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।
এ ব্যাপারে আসমা শিকদার সিমলার স্বামী ফজলুর রহমান বলেন, হিসাব চেয়ে প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও গভর্নিং বডির ২-৩ জন সদস্যের অতিরিক্ত চাপ প্রয়োগের অপমান সহ্য করতে না পেরে আমার স্ত্রী (সিমলা) আত্মহত্যা করেছে। আমি এর সঠিক বিচার চাই। তিনি এব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানিয়েছেন।
আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সভাপতি যুক্তরাজ্য প্রবাসী মুক্তিযোদ্ধা আবদুর রউফ বলেন, সিমলা প্রতিষ্ঠানের অফিস সহকারী। আর অফিস সহকারীর কাছে প্রতিষ্ঠানের হিসাব চাওয়া কোনোভাবেই যুক্তিসঙ্গত নয়। আর তাই হিসেব দিতে কোন সময়ই আমরা তাকে (সিমলা) কোন প্রকার চাপ দেইনি। চাপ দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। হিসাব চাইলে আমরা সাবেক সভাপতি অথবা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষের কাছে চাইতে পারি। আমাদের (গভর্নিং বডি ও ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ) উপর আনিত অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত বলে দাবী করেন তিনি বলেন, পারিবারিক বিরোধের জের সিমলা হারপিক খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। এর কারণ তার দেবর দৌলতপুর ইউনিয়নের শাহীন মেম্বার বছর-খানেক পূর্বে তাকে (সিমলা) বাড়ি থেকে বের করে দেন। পরবর্তীতে তিনি প্রতিষ্ঠানের উল্টো পাশে একটি বাসায় ভাড়ায় উঠেন।
সিমলার দেবর দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার তালুকদার শাহীন আহমদ বলেন, আমার ভাই-ভাবির সঙ্গে কোন বিরোধ নেই। এমনকি বাড়ি থেকেও বের করে দেইনি। আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ মিথ্যা।
এ ব্যাপারে আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবদুল হাসিমের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সমীর কান্তি দেব বলেন, এধরনের কোনো তথ্য বা অভিযোগ আমার কাছে আসেনি। তবে খোঁজ নিয়ে বিষয়টি দেখা হবে। এদিকে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. কামরুজামান।
বিশ্বনাথ থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) শামীম মুসা বলেন, একটি মৌখিক অভিযোগ পেয়ে এ ব্যাপারে তদন্ত করছে থানা পুলিশ।


  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও পড়ুন

সোনার বাংলা নিউজ পাের্টালের উদ্বােধন

         সোনার বাংলা গড়তে হলে সকলকে...

Mailbox Buy Bride — Getting a Spouse By External Your current Nation

         Having a wedding has changed...

সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে নৈতিকতার প্রয়োজন অবশ্যম্ভাবী

         মিজানুর রহমান মিজান: একটা সুসভ্য...