অন্ধকার শেষ, এখন আমরা সমৃদ্ধির পথযাত্রী

প্রকাশিত : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯     আপডেট : ১ বছর আগে

সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান এমপি বলেছেন, দুঃসময় শেষ, অন্ধকার শেষ। এখন আমরা আলোর পথে, উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির পথযাত্রী। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এদেশের মানুষ সংগ্রামের মধ্য দিয়ে তাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন জ্ঞান-বিজ্ঞান বিকশিত, উন্নত জাতি ও উন্নত মানুষ হিসেবে বিশ্বের বুকে আমরা মাথা উঁচু করে দাঁড়াবার সময় এসেছে।
মন্ত্রী আজ শনিবার দুপুরে সিলেট সরকারি মহিলা কলেজে এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। সাহিত্য ও সংস্কৃতি প্রতিযোগিতা ২০১৯ এর পুরষ্কার বিতরণ উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর মুহ. হায়াতুল ইসলাম আকঞ্জির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরও বলেন, শেখ হাসিনা সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে আসছেন। আমাদের অর্থের অভাব আছে। এরপরও এ খাতে সর্বোচ্চ বিনিয়োগ করছে সরকার।
পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান বলেন, বর্তমান সরকার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি শিক্ষাকে গুরুত্ব দিচ্ছে। আমরা শিক্ষার ভারসাম্য চাই। বৈষম্যহীন শিক্ষা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠা করতে সরকার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। বিশ্বের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করে আমরা এগিয়ে যেতে চাই।
সহকারি অধ্যাপক অনুপা নাহার ওয়ালেদার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মেজবাহ উদ্দিন আহমদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন আয়োজক কমিটির আহ্বায়ক ও কলেজের বাংলা বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক আঞ্জুমান আর বেগম।
এর আগে মন্ত্রী নগরীর উপশহরস্থ বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো সিলেট বিভাগীয় কর্মকর্তা-কর্মচারিদের সঙ্গেথ মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, দেশের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নে পরিসংখ্যান ব্যুরো’র বিকল্প নেই। এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো একটি গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় প্রতিষ্ঠান। দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে পরিসংখ্যান ব্যুরো সহায়ক ভূমিকা পালন করে। মাঠ পর্যায়ে তদারকির মাধ্যমে সঠিক তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহে পরিসংখ্যান ব্যুরোর কর্মকর্তা-কর্মচারিদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে।
বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো’র মহাপরিচালক ড. কৃষ্ণা গায়েনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী। তথ্য ও উপাত্ত তুলে ধরেন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো সিলেট বিভাগীয় যুগ্ম পরিচালক আতিকুল কবির।

 

আরও পড়ুন