‘অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনসহ টাকা লেনদেনের অভিযোগ’ তাহিরপুরের সেই ইউএনও বদলি

প্রকাশিত : ০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯     আপডেট : ৯ মাস আগে  
  

বিয়ের প্রলোভন দিয়ে এক নারীর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক স্থাপনসহ ওই নারীকে না জানিয়ে তার নামে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খুলে টাকা লেনদেনের করায় তাহিরপুর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসিফ ইমতিয়াজকে বদলি করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মো. আবদুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে তাকে বদলির বিষয়টি জানানো হয়। সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
অভিযোগে প্রকাশ, ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত অবস্থায় জনৈক শিক্ষার্থীর সঙ্গে পরিচয় ঘটে আসিফ ইমতিয়াজের। তখন তিনি চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে এলএ শাখায় ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা (এলএও) হিসেবে কর্মরত ছিলেন। প্রাথমিক পরিচয়ের সূত্র ধরে তিনি তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। একপর্যায়ে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে অনৈতিক সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বিয়ে করতে না চাইলে বিপত্তি ঘটে। ভুক্তভোগী নারী প্রতিকার চেয়ে গত ৫ মে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবরে লিখিত অভিযোগ দেন। এরপর মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে সুনামগঞ্জ জেলার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হারুন অর রশিদকে প্রধান করে এক সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠিত হয়। গত ১৪ আগস্ট জেলা প্রশাসকের কাছে বিস্তারিত উল্লেখ করে একটি প্রতিবেদন জমা দেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট। এ প্রতিবেদন জমা দেয়ার পর গতকাল বৃহস্পতিবার দেশের দুটি জাতীয় দৈনিকে ইউএনওর নারী কেলেঙ্কারি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। এরপরই তাকে বদলির আদেশ দেওয়া হয়েছে।
সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) আব্দুল আহাদ জানান, আসিফ ইমতিয়াজকে তথ্য প্রযুক্তি যোগাযোগ বিভাগে বদলি করা হয়েছে। আগামী রোববারের মধ্যে এ পদে যোগ দিতে ইউএনও গতকাল বৃহস্পতিবার তাহিরপুর ত্যাগ করেছেন। ইউএনওর বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলেও জানান ডিসি।

আরও পড়ুন